Warning: Cannot modify header information - headers already sent by (output started at /var/sites/f/friendsblog.net/public_html/index.php:43) in /var/sites/f/friendsblog.net/public_html/wp-content/plugins/wp-super-cache/wp-cache-phase2.php on line 58
বিড়ালের এত টাকা! - Friendsblog.net

বিড়ালের এত টাকা!

Loading...

cat-with-moneyঅনলাইনের কল্যাণে পশ্চিমা বিশ্বের সম্পদশালীদের আরাম আয়েশ আর খামখেয়ালির খবর এখন তো পান্তাভাত। মানুষ তো মানুষ, ধনী বেড়ালের সংখ্যাও নেহাৎ কম নয়। নিজেদের ভোগ বিলাস জাহির করার ক্ষেত্রে তারা কিন্তু মানুষদের চেয়ে একটুও পিছিয়ে নেই। সম্প্রতি এই পোষা প্রাণীটির বেশ কিছু আয়েশি ছবি প্রকাশ করেছে ‘ক্যাশক্যাটসডটবিজ’ নামের এক ওয়েবসাইট।

 

 

এই সাইটে যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে মালদ্বীপের বিড়াল পর্যন্ত অংশ নিয়েছে। জনপ্রিয়তার দিক থেকে দেখতে গেলে এটি অনলাইন সেনসেশনে পরিণত হয়েছে। এই সাইটের উদ্ভাবক উইল উইগার্ট(৩৫) বলছেন, ‘অ্যান্টার্কটিকা ছাড়া সব কটি মহাদেশ এতে অংশ নিয়েছে। এখানে এমন সব দেশের বিড়ালের ছবি প্রকাশিত হয়েছে যেগুলোর নাম আমি আগে কখনো শুনিনি। পৃথিবীতে এত ধরনের মুদ্রা প্রচলিত রয়েছে আমি কিন্তু সেটিও জানতাম না।’

 

ওয়েবসাইটটিতে বিড়ালদের এমনসব ছবি চাওয়া হয়েছিল যা দেখলেই তাদের ধনসম্পদ সম্পর্কে একটা প্রাথমিক ধারণা পাওয়া যায়। তাদের শর্ত পূরণ করতেই বুঝি বিচিত্র সব ছবি পাঠানো হয়েছিল। বেশিরভাগ বিড়াল আয়েশ করে বসে ছিল ডলারের ওপর। কারো গলায় শোভা পাচ্ছিল টাকার মালা, কারো বা দামি মদের বোতল। একজন তো তার বেড়ালের সম্পদ আর ক্ষমতার ধার বোঝাতে এর হাতে গুজে দিয়েছেন রিভলভার।

 

এ সম্পর্কে ক্যাশক্যাটসডটবিজ ওয়েবসাইটের মালিক উইল উইগার্ট বলেছেন, ‘এসব ধনী বিড়ালদের ছবি দেখে আমি নিজেই বিস্মিত হয়ে গেছি। নগদ দশ হাজার মার্কিন নোটের শুয়ে আছে এক বিড়াল। আর একটির চারপাশে পড়ে আছে এক গাদা মদের বোতল। কয়েকটি কারণে আমি এদের ছবি প্রকাশ করিনি। প্রথমত আমি তাদের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে চাইনি।

‘তবে আমি বন্দুকওয়ালা বিড়ালের ছবি ছেপেছি। আমার ধারণা পৃথিবীতে এখন বহু বিড়াল রয়েছে যাদের নিজস্ব বন্দুক রয়েছে। মানুষ অর্থ আর ক্ষমতা বলতে তো এ দুটোকেই বুঝে থাকে। অনেকে আবার পাসপোর্টকেও ক্ষমতা হিসেবে দেখে থাকেন। এ কারণেই বুঝি তারা পাসপোর্টধারী বিড়ালের ছবি পাঠিয়েছেন।’ বলছিলেন উইগার্ট।

 

এ কাজে উইগার্টকে প্রেরণা যুগিয়েছেন তার প্রেমিকা, যার পোষা প্রাণীটির নাম ফুগাজি। ক্যাশক্যাট শুরুই হয়েছিল ফুগাজিকে নিয়ে। এই ওয়েবসাইটটির কল্যাণে ফুগাজি ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে।

শুরতে ততটা নজর না কাড়লেও ধীরে ধীরে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে ক্যাশক্যাট। শুধু ফেসবুক নয়, টুইটার এবং থাম্বলার এন্ড ইন্সটাগ্রামের মত সোস্যাল সাইটগুলোতেও চলছে এর জয়জয়কার।

Loading...