Warning: Cannot modify header information - headers already sent by (output started at /var/sites/f/friendsblog.net/public_html/index.php:43) in /var/sites/f/friendsblog.net/public_html/wp-content/plugins/wp-super-cache/wp-cache-phase2.php on line 58
দুনিয়ার কিছু ভয়ংকর চাকুরি

দুনিয়ার কিছু ভয়ংকর চাকুরি

Loading...

1429247205

রোজ চাকরি করতে করতে আপনি হাঁপিয়ে যাচ্ছেন একঘেয়ে কাজ কার আর ভাল লাগে বলুন। কিন্তু শুনলে অবাক হবেন পৃথিবীতে এমন অনেক চাকরি আছে যাকে আপনি চাকরি হিসাবে ভাবতেই পারবেন না৷ পৃথিবীজুড়ে অনেক মানুষের বেঁচে থাকার রসদ যোগাচ্ছে এই চাকরিগুলি৷ চোখ রাখব এমনই কিছু অদ্ভুত পেশার দিকে। একঘেয়ে লাগলে আপনি ট্রাই করে দেখতে পারেন। মন্দ লাগবে না।
প্রফেশনাল পুশার

ট্রেনে-বাসে চলতে গেলে এই কথাটি প্রায়ই কানে আসে ‘দাদা ধাক্কা দেবেন না’। কিন্তু আপনি কি জানেন, এই ধাক্কা দেওয়ার কাজটি কারও কারও পেশা হতে পারে। জাপান ও নিই ইয়র্ক সিটিতে রেলস্টেশনে ভিড়ের সময় প্রফেশনাল পুশাররা ধাক্কা দিয়ে ট্রেনের ভিতর লোক ঢুকাতে সাহায্য করে। আগে এটি স্টুডেন্টদের জন্য পার্টটাইম চাকরি ছিল। এখন এটি ফুল টাইম চাকরি হিসেবে অনেকেই বেছে নিচ্ছে।
ভাড়া করা প্রেমিকের চাকরি
আপনার কি কোনও প্রেমিক আছে? না থাকলে নো চিন্তা বস! অনায়াসে ভাড়া করতে পারেন প্রেমিক। আজকাল ইন্টারনেটে এমনই সব লোভনীয় বিজ্ঞাপনের দেখা মেলে। ছবি, নাম সহ কার ভাড়া কত সব তথ্য থাকবে হাজির। তবে এটি কোনও বেআইনি কাজ না। জাপান, চীন, আমেরিকা, ইউরোপ, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশগুলোতে প্রেমিক ভাড়া দেওয়া হয়ে থাকে এবং এটি সেসব দেশে আইনসম্মত।

বমি পরিষ্কারের চাকরি
ছোটদের বিভিন্ন পার্কে নানা ধরনের রাইড থাকে। আতঙ্ক থাকা সত্ত্বেও এসব রাইডে চড়ার লোভ  সামলাতে পারে না অনেকে। এরমধ্যে এমন কিছু রাইড আছে যাতে চড়ে বমি হয় না এমন মানুষ কমই আছে। তাদের তো আর চিন্তা নেই। বমি করেই খালাস। শুনলে অবাক হবেন সেসব বমি পরিষ্কারের কাজটি করে কেউ কেউ তার জীবিকা অর্জন করছে। তাদের শুধু পার্কের বমি পরিষ্কারের জন্যই রাখা হয়। আর তারা কোনোরকম অস্বস্তিবোধ ছাড়াই কাজটি করে থাকে।
ডিওডোরেন্ট টেস্টার
এই পেশার মানুষদের দিনের পুরো সময়টা অন্যের শরীরের ডিওডোরেন্টের গন্ধ পরীক্ষা করতে হয়। কোন ফ্লেভারটি আমার, আপনার জন্য ভালো হবে এটা তারাই বাছাই করেন। ডিওডোরেন্টের গন্ধ সবচেয়ে বেশি বোঝা যায় বগল আর গলায়। তাই এই বিষয়ে পেশাদার পরীক্ষককে মূলত বগলের গন্ধই বেশি শুঁকতে হয়। একবার পরীক্ষককে শুঁকতে হয় বগলের দুর্গন্ধ থাকা অবস্থায়, তারপর তাঁকে শুঁকতে হয় সেন্ট না দিয়ে সাধারণ গন্ধ, একেবারে শেষে সেন্ট লাগানোর পর সুগন্ধে ভরা বগলের গন্ধ। এরপরই পরীক্ষক কোম্পানিকে রিপোর্টে লেখেন সেই বিশেষ সেন্ট বা ডিওডোরেন্টের পারফরম্যান্স, ভাল দিক- খারাপ দিক, বাজারে কতটা চলবে, সেই সব বিষয়ে।
ওয়াটার স্লাইড পরীক্ষক
ওয়াটার কিংডমে গিয়ে জলের মধ্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আনন্দ করছেন। ওয়াটার স্লাইড দিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে নিচে নামছেন। কোনও ধরনের দুর্ঘটনার মুখোমুখি হচ্ছেন না। এর কারণ ওয়াটার স্লাইড পরীক্ষক। আপনাকে সুস্থ রাখতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওয়াটার স্লাইড টেস্টার আগে থেকেই স্লাইডটি পরীক্ষা করে নেয়। এই স্লাইডে কোনও ধরনের দুর্ঘটনা হওয়ার আশঙ্কা আছে কি না- এটা দেখার দায়িত্ব তাঁদের।
দুনিয়ার কিছু আজব চাকরি
লাইনে দাঁড়ানোর চাকরি
লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে কার ভাল লাগে। মাঝে মাঝেই মনে একটা যদি লোক পাওয়া যেত দাঁড়ানোর জন্য! হ্যাঁ, তেমন লোকও আছে। জাপানে এই প্রফেশনের চাহিদা খুব৷ কিছু মানুষ আপনার হয়ে লম্বা লাইনে দাঁড়িয় থাকবেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা৷ তার পরিবর্তে আপনাকে শুধু টাকা দিতে হবে তাদের৷
ঘুমানোর চাকরি
শুনতে অদ্ভুত লাগলেও এমন চাকরিও রয়েছে৷ ঘুমিয়ে ঘুমিয়েই টাকা রোজকার করা সম্ভব৷ বৈজ্ঞানিকরা যখন কোনও ঘুমের ওষুধ বা ঘুম সংক্রান্ত কোনও বিষয় নিয়ে গবেষণা করেন তখন কিছু মানুষকে টাকার পরিবর্তে ওই ওষুধ বা গবেষণায় কাজে লাগানো হয়৷ ঘুমের পরিবর্তেই তাঁরা পাচ্ছেন টাকা৷
বিয়ের অতিথি হওয়ার চাকরি
বিয়েতে অতিথির ঠেলায় জেরবার হয়ে যাও আমরা। এমনও দেশ আছে যেখানে অতিথি কম পড়ে। বিয়েতে অতিথি ভাড়া করা হয়৷ এমন চাকরিও আছে দুনিয়ায়৷ জাপানে এই কাজের প্রচলন রয়েছে৷ বিয়ের অনুষ্ঠানে অতিথির সংখ্যা বাড়াতে ভাড়া করা হয় অন্যদের৷ টাকার পরিবর্তে তারা বিয়েবাড়ি গিয়ে খেয়ে আসেন৷ তার সঙ্গে অর্থও পান৷
কাঁদার চাকরি
রুদালি সিনেমা দেখে থাকলে আপনি এই চাকরি সম্পর্কে জানবেন৷ কিছু মানুষকে ভাড়া পাওয়া যায় কোনও মানুষের মৃত্যুতে কাঁদার জন্য৷ যাদের কাজই হলো মানুষের মৃত্যুতে গিয়ে কেঁদে আসা এবং পরিবর্তে অর্থ সংগ্রহ৷
আসবাব পরীক্ষক
আসবাব পত্র তৈরি হওয়ার পরে কিছু মানুষকে দিয়ে তার আরাম পরীক্ষা করানো হয়৷ অর্থাৎ কিছু মানুষ থাকে যাঁরা ওই আসবাবে শুয়ে বসে ঘুমিয়ে দেখে নেয় তাতে আরাম হচ্ছে কিনা৷ তার পরিবর্তে তাকে অর্থ দেও

Loading...