মোবাইল গ্রাহকদের সুখবর দিলেন তারানা হালিম

Loading...

tarana_94170মোবাইল গ্রাহকদের সুখবর দিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।  তিনি বলেছেন, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে নম্বর অপরিবর্তিত রেখে গ্রাহকরা মোবাইল অপারেটর পরিবর্তনের (এমএনপি) সুযোগ পাবেন।

বুধবার সচিবালয়ের নিজ দফতরে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

তারানা হালিম বলেন, এ এমএনপি সুবিধা নিতে গ্রাহকদের সর্বোচ্চ খরচ হবে ৩০ টাকা।  এটা চালু হলে অপারেটরদের মধ্যে সুষ্ঠু প্রতিযোগিতা তৈরি হবে। সেইসঙ্গে গ্রাহকরাও কাঙ্ক্ষিত সেবা পাবেন।

তিনি বলেন, মোবাইল সেবা প্রতিযোগিতা ও সেবার মান বৃদ্ধি করতেই সরকার এমএনপি সুবিধা চালু করতে যাচ্ছে।  প্রিপেইড ও পোস্ট পেইড উভয় ধরনের গ্রাহকই এমএনপি সুবিধা পাবেন।  গত ২০ সেপ্টেম্বর এমএনপি নীতিমালার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, নিলামের মাধ্যমে ১৫ বছরের জন্য একটি কোম্পানিকে এমএনপি নিবন্ধন দেয়া হবে।  বছরে নিবন্ধন ফি হবে ২০ লাখ টাকা।  নিবন্ধন দেয়ার পর দ্বিতীয় বছর থেকে নিবন্ধন পাওয়া কোম্পানিকে সাড়ে পাঁচ শতাংশ হারে সরকারকে রাজস্ব দিতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশি বা প্রবাসী বাংলাদেশি মালিকানাধীন কোম্পানি এ নিলামে অংশ নিতে পারবে।  তবে বিদেশি প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে অবশ্যই বাংলাদেশি অংশীদার লাগবে।  বিদেশি প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ মালিকানা থাকবে ৫১ শতাংশ।  কোনো মোবাইল অপারেটর এমএনপি নিবন্ধন নিতে নিলামে অংশ নিতে পারবে না।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আবেদনের তিনদিনের মধ্যে গ্রাহককে এ সেবা দেয়া হবে। যদি কোনো গ্রাহক একবার অপারেটর বদলের পর আবারো অপারেটর বদল করতে চান তাহলে তাকে ৪৫ দিন অপেক্ষা করতে হবে।  বিশ্বের ১০০টিরও বেশি দেশে এ ব্যবস্থা চালু রয়েছে।

২০১২ সালে বাংলাদেশে এমএনপি বাস্তবায়নের প্রথম উদ্যোগ নেয়া হয় বলে জানান তিনি।

Loading...