বাংলা জোকস ১৯+ বাচ্চাদের পড়া নিষেদ :D

Loading...

→ প্রেমিকঃ আমাকে বিয়ে করলে তোমার সামান্যতম ইচ্ছাও পূরণ করবো।
প্রেমিকাঃ তা হলে তো মনে হচ্ছে তোমাকে বিয়ে করার পরও আমাকে আরেকটা বিয়ে… মানে দ্বিতীয় বিয়ে করতে হবে।
প্রেমিকঃ কেন? কেন?
প্রেমিকাঃ বাহ, আমার বড় ইচ্ছাগুলো পূরণ করবে কে?

→ লাজুক বান্ধবীকে তার আরেক ফাজিল বান্ধবী বিয়ের উপহার পাঠালো। সাথে চিরকুটে লেখা ‘দয়া করে আমার পাঠানো পোশাকটা পড়ে বাসর ঘরে যাবি।’ লাজুক বান্ধবী উপহারের প্যাকেট খুলে দেখে ভিতরে কিছু নেই

→ মেয়েঃ “আমি প্রেমে পড়েছি”
মেয়ে ১: ” কে সে?”
মেয়ে ২: “কি করে?”
মেয়ে ৩: “দেখতে কেমন”
মেয়ে ৪: “কত লম্বা”
মেয়ে ৫: “ওর বন্ধুরা কেমন?”

আর,
ছেলেঃ “আমি প্রেমে পড়েছি”
ছেলে ১: “দোস্ত, পার্টি দে”
ছেলে ২: “দোস্ত পার্টি দে”
ছেলে ৩: “দোস্ত পার্টি দে”
ছেলে ৪: “দোস্ত পার্টি দে”
ছেলে ৫: “দোস্ত, পার্টি দে”………………পার্টি দে পার্টি!

→ কলেজের প্রথম দিন ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশে বলছেন ডিন:

ছেলেরা মেয়েদের হোস্টেলে এবং মেয়েরা ছেলেদের হোস্টেলে ঢুকতে পারবে না। যদি প্রথমবারের মতো কেউ এই নিয়ম ভঙ্গ করে, তাহলে তাকে ২৫০ টাকা জরিমানা করা হবে।

যদি দ্বিতীয়বারের মতো কেউ এই নিয়ম ভঙ্গ করে, তাহলে তাকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হবে।
আর কেউ তৃতীয়বারের মতো এই নিয়ম ভঙ্গ করলে তাকে ১০০০ টাকা জরিমানা করা হবে।
এমন সময় ভিড়ের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকা এক ছাত্র জিজ্ঞেস করল, পুরো বছরের জন্য গেট পাস নিতে কত লাগবে?

→ ক্লাস টু-তে এক পিচ্চি মেয়ে উঠে দাঁড়িয়ে বলছে, ‘টিচার টিচার, আমার আম্মু কি প্রেগন্যান্ট হতে পারবে?’

টিচার বললেন, ‘তোমার আম্মুর বয়স কত সোনা?’

পিচ্চি বললো, ‘চল্লিশ।’

টিচার বললেন, ‘হ্যাঁ, তোমার আম্মু প্রেগন্যান্ট হতে পারবেন।’

পিচ্চি এবার বললো, ‘আমার আপু কি প্রেগন্যান্ট হতে পারবে?’

টিচার বললেন, ‘তোমার আপুর বয়স কত সোনা?’

পিচ্চি বললো, ‘আঠারো।’

টিচার বললেন, ‘হ্যাঁ, তোমার আপু প্রেগন্যান্ট হতে পারবে।’

পিচ্চি এবার বললো, ‘আমি কি প্রেগন্যান্ট হতে পারবো?’

টিচার হেসে বললেন, ‘তোমার বয়স কত সোনা?’

পিচ্চি বললো, ‘আট।’

টিচার বললেন, ‘না সোনা, তুমি প্রেগন্যান্ট হতে পারবে না।’

এ কথা শোনার পর পেছন থেকে ছোট্ট বাবু পিচ্চিকে খোঁচা দিয়ে বললো, ‘শুনলে তো? আমি তো তখনই বলেছি, আমাদের চিন্তা করার কিছু নেই।’  😀

→  ————————————————-
জন্ম নিয়ন্ত্রন সম্পর্কে এক অবিবাহিতা তরুনী ডাক্তার গাঁয়ের বিবাহিতা মহিলাদের বোঝাচ্ছিলেন।
সব শোনার পর গাঁয়ের মহিলারা বললো, “এসব আপনের দরকার কারন আপনের বিয়ে হয় নি,

কিন্তু আমাগো সোয়ামি আছে…” B-)
————————————————-

→ ————————————————-
এক ছেলের বাপ মাঝে মধ্যেই আফসোস করে ঐ ছেলেরে নিয়া !!!!!!!
ছেলের দিকে তাকাইয়া কয়,







শালার ঐ দিন যদি ফার্মেসীটা খোলা থাকত রে……..  X((
————————————————-

→  ————————————————-

দয়াল বাবাকে তার এক শিষ্য প্রশ্ন করল,
শিষ্য : বাবা, হাসি নাকি অমূল্য হয়? বুঝায় বলেন….

দয়াল বাবা : ধর তুই তোর প্রেমিকারে নিয়া লং ড্রাইভে গিয়া ১০০০টাকা খরচ করলি, সিনেমা দেইখা ৫০০টাকা উড়ালি, পাঁচতারা হোটেলে খাইয়া ৩০০০টাকা বিল দিলি, ওই হোটেলে ১০০০০টাকা দিয়া রুম ভাড়া নিয়া প্রেমিকারে নিয়া ঢুকলি। তারপর যখন করতে (!) গেলি তখন সে কয়, “সরি জান। আজ আমার ২য় দিন চলছে।” তখন তারে খুশি করতে যে হাসি দিবি ওইটাই অমূল্য হাসি…..
————————————————-

 

 

Loading...