অদ্ভুত সেই ছেলেটি আবার শুরু করল হাঁটা
কালো লম্বা এলোমেলো চুলে চোখ দুটো তার ঢাকা
হাতে তার অ্যাকৌস্টিক পকেটে হারমোনিকা
কষ্টে ভরা এ জীবনের বহু গান যে তার শোনা

আমাদের এই বাংলাদেশে ছিল তার বাড়ি
কাউকে কিছু না বলে অভিমানে দূর দেশে দিল পারি
পকেটে টাকা শেষ খাওয়া হয়নি কিছু
খিদে কেন ছুটছে শুধু তার পিছু পিছু
অদ্ভুত ছেলেটি শুরু করল গাওয়া
হাতে তার অ্যাকৌস্টিক পকেটে হারমোনিকা

জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা
জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা

একটি বনে ঢুকল সে গাছ্গাছালিতে ঢাকা
আনমনা হয়ে প্রকৃতি দেখে বিশাল বনে একা
খিদের জালায় অস্থির মন যাবে কী বাড়ি ফিরে
তার চেয়ে জীবন ভালো বন্য প্রাণীর ভিড়ে
অদ্ভুত ছেলেটি শুরু করল গাওয়া
হাতে তার অ্যাকৌস্টিক পকেটে হারমোনিকা

জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা
জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা

পাহাড়ী ঝর্ণা রংধনু পাহাড়ের কথা বলায়
প্রকৃতি বলে গান গেয়ে যাও শুনছি আমি তোমায়
তুলে নিল সে হাতে গিটার অন্য এক সুরে
প্রতিভার কথা জানিয়ে দিল শান্ত প্রকৃতিকে
অদ্ভুত ছেলেটি শেষ হয়না গানটা
খুদার্থ দেহ থেকে জীবনটা চলে যায়
রয়ে যায় সে সুরটা

জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা
জোছনায় অজানা পথে চলা
এখানে আছে যে মোর ভালোবাসা

বলছে এ প্রকৃতি যে সুরের রঙে আকা
সেই ছেলেটির সবগুলো গান
হলোনাত মোর শোনা
বনের একটি শুকনো ফুল নাম না জানা
পাশে ঘুনে ধরা অ্যাকৌস্টিক ভাঙা হারমোনিকা
হারমনিক হারমোনিকা হারমোনিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *